কন্যাসন্তানের সম্পত্তি বণ্টন যা জেনে রাখা দরকার

একমাত্র কন্যা সন্তানের বাবা। মেয়ের বয়স এখনও ১৮ হয়নি। লতিফ পৈতৃক সূত্রে অঢেল সম্পত্তির মালিক। তার আরও দুই ভাই এবং ভাইদের ছেলে রয়েছে। লতিফের চিন্তা- ভবিষ্যতে তার মৃত্যুর পর তার একমাত্র মেয়ে এ অঢেল সম্পত্তি ভোগ করতে পারবে তো? নাকি তার এ সম্পত্তি থেকে মেয়েকে বঞ্চিত করে অন্যরা সম্পত্তি ভাগ করে নেবে। লতিফ দম্পতি তাই একজন আইনজীবীর পরামর্শ চান- কীভাবে তাদের অনুপস্থিতিতে তাদের মেয়ে পুরো সম্পত্তি পেতে পারে; তাদের মেয়ে আইনত কত ভাগ জমির মালিক হবে; কীভাবে নিশ্চিত হবে মেয়ের ভবিষ্যৎ।
শুধু কন্যাসন্তান থাকলে
মুসলিম আইন অনুযায়ী মৃত ব্যক্তির একজন মেয়ে থাকলে এবং কোনো ছেলে না থাকলে মেয়ে মৃত ব্যক্তির মোট সম্পত্তির অর্ধেক পাবে। যদি একাধিক মেয়ে থাকে এবং ছেলে না থাকে মেয়েরা মোট সম্পত্তির দুই-তৃতীয়াংশ পাবে এবং এ অংশ সব মেয়ের মধ্যে সমান ভাগে ভাগ হবে। বাকি সম্পত্তি অন্যরা পাবে। এখন লতিফের মেয়ের ক্ষেত্রে লতিফের মৃত্যুর পর যদি তার স্ত্রীও বেঁচে না থাকেন তাহলে তাদের পুরো সম্পত্তির অর্ধেক তার মেয়ে পাবে। তার মেয়ে অর্ধেক পাওয়ার পর বাকি সম্পত্তি অন্য ওয়ারিশরা পাবে। যদি লতিফের স্ত্রী বেঁচে থাকেন তাহলে তার স্ত্রী সম্পত্তির আট ভাগের এক ভাগ পাবেন এবং মেয়ে সম্পত্তির অর্ধেক পাবে এবং বাকি সম্পত্তি অন্যরা পাবে। যদি লতিফের একাধিক মেয়ে থাকত এবং কোনো ছেলে না থাকত, তাহলে মেয়েরা সম্পত্তির দুই-তৃতীয়াংশ পেত।
মেয়েকে কি আগেই দান করা যাবে
যে কেউ তার একমাত্র বা একাধিক মেয়েকে জীবিত থাকা অবস্থায় সম্পত্তি দান করে যেতে পারেন। তবে এ দান করতে হবে যথাযথ উপায়ে এবং দানের সব আইনি শর্ত মেনে। ওপরের ঘটনার ক্ষেত্রে বলা যায় লতিফও তার মেয়েকে ইচ্ছা করলে তার পুরো সম্পত্তি দান করে যেতে পারেন। তবে এ দানের ক্ষেত্রে যে শর্ত অছে, তা অবশ্যই তাকে মানতে হবে। দানটি অবশ্যই ঘোষিত হতে হবে। দ্বিতীয়ত দানকৃত সম্পত্তি মেয়ের দখলে দিয়ে দিতে হবে বা হস্তান্তর করে দিতে হবে এবং দানের লিখিত দলিল অবশ্যই রেজিস্ট্রি করতে হবে। এখন প্রশ্ন জাগতে পারে, লতিফ সাহেবের মেয়ে তো এখনও অপ্রাপ্তবয়স্ক। তাকে কি দান করা যাবে? এর উত্তর হচ্ছে- হ্যাঁ যাবে। তবে সম্পত্তির দখল মেয়ে প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পরই হস্তান্তর করে দিতে হবে। তবে মেয়েকে সম্পত্তি দিয়ে দেওয়া মানে এই নয় যে, বাবা-মাকে সম্পত্তি ছেড়ে চলে যেতে হবে। বাবা-মা মেয়ের সঙ্গেই অবস্থান করতে পারবেন। আর মেয়ের বিয়ে দিয়ে দিলে যদিও মেয়ের নামে সম্পত্তি রয়েছে, তবু মেয়ের সম্পত্তিতে বাবা-মা বসবাস করতে আইনত কোনো বাধা নেই। আর মেয়েকেও খেয়াল রাখতে হবে, বাবা-মায়ের দান করা সম্পত্তির মালিক হয়ে যেন বাবা-মাকে বঞ্চিত করা না হয়। বাবা-মাকে বঞ্চিত করলে বাবা-মারও অধিকার রয়েছে আইনের আশ্রয় নেওয়ার। অনেককেই বলতে শোনা যায়, মেয়েকে উইল করে যাবে। মনে রাখতে হবে মেয়েকে উইল করে গেলে পুরো সম্পত্তির এক-তৃতীয়াংশের বেশি উইল করা যাবে না। এর বেশি উইল করলে অন্যান্য উত্তরাধিকারীর সম্মতি লাগবে। আর উইল কার্যকর হবে উইলকারীর মৃত্যুর পর। সূত্র: সমকাল।